শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোপালগঞ্জ জেলা আ’লীগের সভাপতি মাহাবুব আলী খান ও সাধারণ সম্পাদক জিএম সাহাবুদ্দিন আজম সাতক্ষীরায় ইজিবাইকে মিললো প্রায় ২ কেজি ওজনের ১৬টি স্বর্ণের বার সাতক্ষীরার রাজারবাগ ঋষিপাড়া শ্রমজীবী সমবায় সমিতি লিঃ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী বঙ্গবন্ধু ত্যাগের রাজনীতি করতেন: গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে শেখ সেলিম এমপি কালিগঞ্জে ফেনসিডিলসহ ১জনকে আটক করেছে পুলিশ খুলনা মেডিকেল কলেজটি আধুনিকায়নে কাজ করছেন অধ্যাঃ ডাঃ দ্বীন উল ইসলাম ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের আয়োজনে বিশ্ব এইডস দিবস পালিত বিএনপি কোনোদিনও রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসতে পারবে না-শেখ সেলিম এমপি (ভিডিও সহ) তালায় আশ্রায়ণ প্রকল্পে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান উদ্বোধন এসএসসি-৯৩ ব্যাচের উদ্যোগে সাতক্ষীরায় অক্সিজেন সিলিন্ডারসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ

পাটকেলঘাটায় স্ত্রীর দাবিতে ছেলের তালাবদ্ধ বাড়িতে অবস্থান স্কুল ছাত্রীর

রঘুনাথ খাঁ, জেষ্ঠ প্রতিবেদক:
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩০ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৩৮ বার পড়া হয়েছে

বিয়ের ফাঁদে ফেলে নবম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলার ভিডিও চিত্র বিভিন্ন মোবাইলে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠায় বাড়িতে তালা মেরে বৃহষ্পতিবার রাতে পালিয়েছে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানাধীন ছোট কাশীপুর গ্রামের এক পরিবার। নিরুপায় হয়ে ওই স্কুল ছাত্রী শুক্রবার রাত থেকে স্ত্রীর দাবিতে ওই বাড়িতে অবস্থান করছে।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে কোন পক্ষই থানায় কোন অভিযোগ না করায় বিপাকে পড়েছে পাটকেলঘাটা থানার পুলিশ।

সরেজমিনে রবিবার দুপুরে ছোট কাশীপুর গ্রামে গেলে মৃত্যুঞ্জয় দাসের বাড়িতে অবস্থানকারী খুলনা জেলা শহরের সোনাডাঙ্গা এলাকার একটি কলেজিয়েট স্কুলের নবম শ্রেণীর ছাত্রী শ্যামলী দাস (১৬) জানায়, তাদের গ্রামের মিঠুন দাস (২৫) পাটকেলঘাটা বাজারে একটি হার্ডওয়ার দোকানের কর্মচারি। দেড় বছর আগে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। স্থানীয় রাধা গোবিন্দ মন্দিরের ঠাকুরকে সাক্ষী রেখে মিঠুন তার কপালে সিঁদুর পরিয়ে দিয়ে স্ত্রীর মর্যাদা দেয়। বিষয়টি মিঠুন তার কাকাতো বোন টুম্পাকে বলে তাদের বাড়িতেই শারীরিক সম্পর্ক করতো। খুলনার ছাত্রীনিবাস গেলে মোবাইলে তাদের কথা হতো। করোনার কারণে তিন মাস আগে সে বাড়ি আসে। এরপরও বিভিন্ন স্থানে তাদের শারীরিক সম্পর্ক চলতো। সম্প্রতি সে মিঠুনকে স্ত্রী হিসেবে বাড়িতে তোলার জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। এতে মিঠুন তাদের অন্ত:রঙ্গ ভিডিও চিত্র সে নিজে ও বন্ধুদের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। বাধ্য হয়ে সে বিষয়টি বাবা ও মাকে অবহিত করে। বিষয়টি বাবা মিঠুনের বাবা ও মাকে জানায়।

অনিল দাস জানান, শ্যামলীকে পুত্রবধু হিসেবে মেনে নিতে রাজী না হওয়ায় তারা বিষয়টি স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিদের অবহিত করেন। বিষয়টি নিয়ে গত ২২ আগষ্ট শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় রাধাগোবিন্দ মন্দিরে মিঠুনের পরিবারকে ডাকেন এলাকাবাসী। মেয়ে ইউএনডিপি’র কর্মচারি চম্পা দাস বাড়িতে না থাকায় তারা এক সপ্তাহের সময় চান। ২৪ আগষ্ট তাদের (অনিল) বাড়িতে ও আর এক দফা বসাবাসি হয়। মিঠুনের পরিবার বিষয়টি মেনে নিতে রাজী না হওয়ায় ২৬ আগষ্ট বুধবার সন্ধ্যায় শ্যামলী নিজ বাড়িতে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এর মধ্যে শ্যামলী গত ২২ আগষ্ট এপেনডিসাইটিস অপারেশন হয়ে পাটকেলঘাটা লোকনাথ ক্লিনিকে। ২৬ আগষ্ট তার ছাড়পত্র দেওয়া হয়। ২৭ আগষ্ট বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়িতে তালা লাগিয়ে মিঠুন দাস, তার বাবা মৃত্যুঞ্জয় দাসসহ পরিবারের সদস্যরা অন্যত্র চলে যায়। ফলে ২৮ আগষ্টের শালিসি বৈঠক না হওয়ায় রাত ৯টার দিকে শ্যামলী স্ত্রীর দাবিতে মিঠুনদের বাড়ির বারান্দায় অবস্থান করছে। বিষয়টি ট্রিপল নাইনে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে।

তবে ছোট কাশীপুর দাসপাড়ার বিশ্বজিৎ দাস, সঞ্জয় দাসসহ কয়েকজন জানান, মিঠুন স্ত্রী হিসেবে শ্যামলীকে মেনে নিতে চাইলেও আপত্তি করছে তার বোন চম্পা ও বাবা মৃত্যুঞ্জয়। ফলে পরিস্থিতি পরপর জটিল হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মিঠুন দাসের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে তার বোন চম্পা দাসের সঙ্গে যোগাযোগ করলে নম্বরটি সঠিক নয় বলে দাবি করেন।

পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ জেল্লাল হোসেন বলেন, ট্রিপল নাইনে ফোন করায় উপরিদর্শক প্রদ্যুৎকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছিলেন। তবে কোন লিখিত অভিযোগ না পাওয়ায় পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিতে পারছে না। স্থানীয় একটি মহল ভিকটিম পরিবারকে থানায় আসতে বাধা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ
  • ১৫:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ১৭:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৩২ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!