মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গোপালগঞ্জে অসুস্থ সোয়েব মোল্লার হাতে আর্থিক সহায়তার চেক তুলে দিলেন উপ-পরিচালক মোঃ হারুন অর রশিদ কালিগঞ্জে সূর্যমুখীর প্রদর্শনীর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত কালিগঞ্জে ৭ই মার্চ, বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী, গণহত্যা ও স্বাধীনতা দিবসের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত কালিগঞ্জ শ্রমিক ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দের শপথবাক্য পাঠ ও দায়িত্ব গ্রহন (ভিডিওসহ) সাতক্ষীরা শহরের মাস্টার পাড়ায় স্বপ্ন মোটরস এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রিয়, কোন আলো লাগলো চোখে!! কবি তানভীর আহমেদ ঘুরে এলাম সাতক্ষীরার ঐতিহ্যবাহি ছয়ঘরিয়ার জোড়া শিব মন্দির চায়ের চুম্বন! কবি তানভীর আহমেদ নিরলস মধ্যরাত! কবি তানভীর আহমেদ ভোমরাকে পূর্নাঙ্গ স্থলবন্দরে রুপান্তরের দাবিতে মানববন্ধন

১৫ মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচতে সাতক্ষীরার পাঁচ সহোদর ও চাচাতো ভাইদের সংবাদ সম্মেলন 

✍️খন্দকার আনিছুর রহমান তাজুল📝নিজস্ব প্রতিবেদক☑️
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে
সাতক্ষীরায় সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ আপন ভাই ও ভাইপোর দায়েরকৃত ১৫টি মিথ্যা মামলায় দিশেহারা পাঁচ সহোদর ও চাচাতো ভাইয়েরা।
হয়রানি থেকে পরিত্রাণ পেতে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পাঁচ ভাই ও তাদের পরিবার। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জেরে সহোদর ভাই ও ভাইপোর দায়েরকৃত মামলায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন অপর পাঁচ সহোদর ও চাচাতো ভাইয়েরা। ঘটনাটি শহরের কাটিয়া টাউন বাজার এলাকার মরহুম আলহাজ মোঃ গোলাম আকবর পরিবারের। গোলাম আকবরের মেজ ছেলে মহসিন আলী ও তার ছেলে আবজাল হোসেনের চক্রান্তে অপর পাঁচ বর্তমানে দিশেহারা।
তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে দায়ের করা  মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে পরিত্রাণ পেতে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন পাঁচ সহোদর ও তাদের চাচাতো ভাইয়েরা। গতকাল সোমবার ৪ ডিসেম্বর ২০২৩ সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে এসব জানান কাটিয়া টাউন বাজার এলাকার মৃত গোলাম আকবরের ছেলে আবুল বাসার। সংবাদ সম্মেলনে শহরের কাটিয়া এলাকার মৃত গোলাম আকবরের ছেলে আবুল বাসারের সমাথে এসময় তার ভাই  আবু জাফর, মৃত আব্দুল্লাহ ও মৃত আবুল আহসানের পরিবারের সদস্য ও চাচাতো ভাইয়েরা উপস্থিত ছিলেন।
সাংবাদিক সম্মেলন লিখিত বক্তেব্যে আবুল বাসার আরও বলেন, তাদের পিতা মরহুম গোলাম আকবর সাতক্ষীরা শহরের স্বনামধন্য ব্যবসায়ী ছিলেন। তারা ছয় ভাই। তার বাবার মৃত্যুর পর তার আপন বড়ভাই মহসিন আলী ও তার ছেলে আবজাল হোসেন তাদের ভাইদের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও হয়রানি করে আসছে মহসিন ও তার ছেলে আবজাল হোসেন। আমরা শহরের কাটিয়া টাউন বাজার এলাকার মরহুম গোলাম আকবরের ছেলেমেয়েরা শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছি, আমাদের পিতা গোলাম আকবরের মৃত্যুর পর তার জমিজমা নিয়ে আমাদের ভাই ও চাচাতো ভাইদের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়। যা বর্তমানে চরম আকার ধারণ করেছে। এই নিয়ে আমাদের পরিবারের মধ্যে অশান্তির রূপ নিয়েছে। আমাদের পিতা মরহুম গোলাম আকবর জীবিত থাকা অবস্থায় আমাদের কাটিয়ার সমস্ত জমিজমা ‘সরদার ইসমাইল ট্রাস্ট’ এর নামে দুটি দলিল করে যান। ওই দলিল দুটি থাকার কারনে কাটিয়ার জমিজমা ‘সরদার ইসমাইল ট্রাস্ট’ এর নামে ডিপি/মাঠপর্চা ও খতিয়ান প্রস্তুত হয়। কিন্তু ওই ট্রাস্ট পরিচালনা কমিটি থেকে আমরা ও আমাদের ভাইয়েরা অথাৎ ট্রাস্ট পরিচালনা কমিটি বসে সকলের সম্মতির মাধ্যমে ট্রাস্ট দলিল দু্িট বাতিলের প্রার্থনা করে যুগ্ম জেলা জজ প্রথমম আদালত দেং- ৪২/২০১ন নং মোকদ্দমা দাখিল করি। ওই মোকদ্দমা গত ০৬/০৫/১৯ তারিখে আমাদের মধ্যে সেলেনামা সূত্রে ডিক্রী হয় এবং ওই ট্রাস্ট দলিল দুটি বাতিল মর্মে ঘোষণা করা হয়। এই ডিক্রী অনুযায়ী আমরা পরবর্তীতে খুলনা জোনাল সেটেলমেন্ট অফিস থেকে আমরা সবাই একত্রে এবং সসলের সম্মতিতে ওই জমিজায়গা আমাদের নিজেদের নামে রেকর্ড প্রস্তুত করি। যা বর্তমানে চূড়ান্ত রূপে প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু আমাদের মেজ ভাই মহসিন আলী উপরোক্ত বিষয়গুলি অস্বীকার করে আমাদের ভাইদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আদালতে বিভিন্ন অভিযোগে প্রায় ১৫টি ভিত্তিহীন মিথ্যা মামলা করেছেন। এরই প্রেক্ষিতে আমরা আর্থিক এবং সামাজিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, গত ২৮/১১/২০২৩ তারিখে আমাদের মেজ ভাই মহসিন আলী সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনে গণমুখী ক্লাবের পার্শ্বে হাবিবুল্লাহ মাস্টারের বাড়ির সামনে সড়ক দূঘর্টনায় আক্রান্ত হয়। এ ঘটনায় তার ছেলে আবজাল হোসেন তার তিন চাচার (আমাদের তিন ভাই) নামে থানায় একটি মিথ্যা অভিযোগ করে। পরবর্তীতে থানার পুলিশ কর্মকর্তা কর্তৃক সুষ্ঠু তদন্তে ওই বিষয়টি সড়ক দুর্ঘটনা বলে প্রমানিত হয়।
মহসিন আলী ও তার ছেলে আবজাল হোসেন কর্তৃক একের পর এক মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও মনগড়া ঘটনা দিয়ে মামলা করে আমাদের নাজেহাল করে চলেছে। বর্তমানে আমরা আমাদের পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। নিজেরা কোন ঘটনা ঘটিয়ে আমাদের ঘায়েল করার জন্য পায়তারা চালাচ্ছে পিতা-পুত্র। সুষ্ঠু তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে পিতা-পুত্রের ষড়যন্ত্র। এ ঘটনায় তারা জেলা পুলিশ সুপারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ১৮:০৬ অপরাহ্ণ
  • ১৯:১৯ অপরাহ্ণ
  • ৬:১৭ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!