সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আমি হারিয়েছি পিতা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোটা পরিবার হারিয়ে দেশকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়: সংসদে এমপি সেঁজুতি কলারোয়ায় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আলতাফ হোসেন লাল্টুর নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন শ্রমিকদের স্বার্থকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন সেক্রেটারি শাহাঙ্গীর হোসেন শাহিন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: তালায় সাংবাদিকদের সাথে ডা. মাহমুদুল হকের মতবিনিময় ঘুষ দিয়েও ঋণ না পাওয়ায় মৃত্যুর পর রাষ্ট্রীয় সম্মাননা প্রত্যাখান করে বীরমুক্তিযোদ্ধার সংবাদ সম্মেলন সাতক্ষীরা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি রবি’র সুস্থতা কামনা ১১তম হুয়াওয়ে ‘সিডস ফর দ্য ফিউচার বাংলাদেশ’-এর নিবন্ধন শুরু যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংশোধিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হলেন লায়লা পারভীন সেঁজুতি (এমপি) তালায় দুর্যোগ ঝুঁকি ফসল উৎপাদনে প্রশিক্ষণ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তালায় আ’লীগের পাশাপাশি প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি ও জামায়াতের প্রার্থী

আশাশুনির বৃদ্ধ আব্দুল জব্বারের আকুতি: মৃতের পর তার লাশ যেন নদীতে ভাসানো না হয়!?

আসাদুজ্জামান::
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০
  • ২৫১ বার পড়া হয়েছে

“মৃত্যুর আগে আর হয়তো বা নিজের কোন জায়গায় স্থায়ী ভাবে ঘর নির্মাণ করতে পারবো না, পাবো না হয়তো সরকারি কোন সুবিধা। নিজের বলতে যেহেতু আমার কোন জায়গা জমি কিছুই নেই, সেহেতু আমার মৃত্যুর পর আমাকে যেন নদীতে ফেলে দেওয়া না হয়, অবশ্যই যেন মাটিতে দাফন করা হয়। সেটা সরকারি কবরস্থান হলেও চলবে”।

এমনভাবে কাঁদতে কাঁদতে হৃদয় বিদারক এ কথা গুলো বললেন, সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কুল্যা গ্রামের ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ আব্দুল জব্বার। পেশায় তিনি একজন শ্রমিক। তিনি কুল্যা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাসীন্দা। দীর্ঘ প্রায় ৩৫ বছর যাবত ওই গ্রামের বিভিন্ন মানুষের বাড়ীর আঙ্গিনায় কুড়ে ঘর বেঁধে তিনি বসবাস করে আসছেন। তার নিজের বলতে কিছুই নাই। তিনি একজন প্রকৃত অসহায় ভূমিহীন হলেও তার নামে নেই কোন বয়স্ক ভাতার কার্ড, নেই ভিজিডি কার্ড, নেই ভূমিহীন তালিকায় নাম, এমনকি কয়েক যুগ ধরে মানুষের বাগানে বনবাসী হয় অস্থায়ী ভাবে বসবাস করলেও ভাগ্য মেলেনি এক টুকরো সরকারি জমি বা একটি সরকারি ঘর। তিনি সরকারি সকল সুবিধা বঞ্চিত হয়েও পরিশ্রম করে জীবন যাপন করে চলেছেন। তিনি গ্রামের বিভিন্ন স্থানে মাটি কাটা থেকে শুরু করে দো-চালা ঘর নির্মানের কাজ করে থাকেন। অথচ আজ পর্যন্ত কোন সরকারী-বেসরকারী পর্যায়ের কোন সংস্থা বা ব্যক্তি উদ্যোগে তিনি পাননি কোন সাহায্য। তাই জীবন সায়াহ্ন এসে তার একটাই আকুতি তার মৃত্যুর পর তার মরদেহ যেন নদীতে না ফেলে এক টুকরো জমিতে দাফনের ব্যবস্থা করা হয়।

সংবাদ টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৯ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ১৬:২২ অপরাহ্ণ
  • ১৮:০৫ অপরাহ্ণ
  • ১৯:১৮ অপরাহ্ণ
  • ৬:২০ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102
error: Content is protected !!